ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪

অর্থমন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ সলীমুল্লাহ বলেছেন, দেশের উন্নয়নের জন্য বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ প্রয়োজন। পুঁজিবাজার এই চাহিদার অনেকটা পূরণ করতে পারে। তাই পুঁজিবাজার হচ্ছে উন্নয়নের চাবিকাঠি। তবে এই বাজারের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হলে মানুষের আস্থা ধরে রাখতে হবে। কারণ আস্থা থাকলেই কেবল মানুষ এখানে এসে বিনিয়োগ করবে, নইলে তারা এখানে আসবে না।

সোমবার (৭ নভেম্বর) পুঁজিবাজার স্থিতিশীলতা তহবিলের (সিএমএসএফ) নতুন অফিসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, পুঁজিবাজার হচ্ছে স্পেকুলেটিভ মার্কেট (ফাটকাবাজার। এটি ঝুঁকিপূর্ণ জায়গা। ত্রিশের দশকে বিশ্ব অর্থনীতির মহামন্দার সময় অসংখ্য বিনিয়োগকারী আত্মহত্যা করেছেন। তাই এই বাজারে বিনিয়োগ করলে পেইন নিতে হবে। আবার আশায় বুকও বাঁধতে হবে। দৃঢ়ভাবে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতে হবে।

তিনি পুঁজিবাজার স্থিতিশীল রাখার গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, বাজার স্থিতিশীল থাকলে বিনিয়োগকারীরা তেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয় না।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব বলেন, স্থিতিশীলতা তহবিলের টাকা বিনিয়োগকারীদের টাকা। তারা ফেরত চাইলে যাতে ফেরত দেওয়া যায়, সে অনুসারে কার্যক্রম চালাতে হবে। তহবিলের অর্থ বিনিয়োগে যদি লোকসান হয়, তাহলে তাদের টাকা ফেরত দেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে। তাই ইনপুন-আউটপুট রেশিও ঠিক রাখার চেষ্টা করতে হবে। নইলে ফান্ডের পরিচালনা ব্যয় নির্বাহ করাও কঠিন হবে।

সিএমএসএফের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ, ড. মিজানুর রহমান ও আব্দুল হালিম, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান ইউনুসুর রহমান, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহীম, ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট রিচার্ড ডি রোজারিও উপস্থিত ছিলেন।

অফিস উদ্বোধনের পাশাপাশি প্রধান অতিথি মুজিব কর্নার, সিএমএসএফের ওয়েবসাইট ও একটি পকেটবুক উদ্বোধন করেন।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *