জুন ১৭, ২০২৪

নতুন ভিসা নীতির কারণে যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধ টাকা পাচার কমবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আমাদের বলেছে, প্রধানমন্ত্রী যে ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার ইলেকশন করতে চান, সেটাকে সাহায্য করার জন্য তারা তাদের ভিসা নীতি প্রচলন করেছে। আফটার ইট উড বি ইফেকটিভ…আই ডোন্ট নো।

শনিবার (২৭ মে) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

ড. মোমেন বলেন, আমরা চাইব, এ ভিসা নীতির আওতায় জ্বালাও-পোড়াও বন্ধ হোক। যারা জ্বালাও-পোড়াও করে, তাদের সতর্ক হওয়া দরকার, তাদের নেতাদের সতর্ক হওয়া দরকার। জ্বালাও-পোড়াওয়ের কারণে যারা একবার জ্বলেছে, তাদের চেহারা দেখলে বড় দুঃখ পাবেন। আমরা আর জ্বালাও-পোড়াও চাই না। ৩ হাজার ৮০০ গাড়ি-ঘোড়া জ্বালিয়েছে, বগি-স্টিমার জ্বালিয়েছে। এই আইনের কারণে যদি জ্বালাও-পোড়াও বন্ধ হয় দ্যাট উড বি অ্যা ব্লেসিং। জ্বালাও-পোড়াও কারা করে আপনি জানেন। যারা করেন তাদের সতর্ক হওয়া দরকার, তাদের লিডারশিপের সতর্ক হওয়া দরকার।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের আবেদন করার কোনো প্রয়োজন নেই। আমরা একটি সুন্দর-স্বচ্ছ; ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার ইলেকশন করার জন্য যা যা দরকার আমরা সেই ইনস্টিটিউশন ডেভেলপ করেছি। আমরা একটা ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার ইলেকশন করব। সেখানে অন্য কেউ আমাদের সাহায্য করেন-ভালো, না করলেও উই আর কমিডেট টু। আর বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ হচ্ছে গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় পূজারী। আমরা এ দেশে গণতন্ত্রকে রিএস্ট্যাবলিশ করেছি। আমরা গণতন্ত্রের মধ্যে সব সময় নির্বাচিত হয়েছি। এ দেশে যারা গণতন্ত্রের বাইরে নির্বাচিত হয়েছে ভোটারবিহীন নির্বাচনে তাদের দেড় মাসের মধ্যে ফেলে দিয়েছে পাবলিক।’

তিনি আরও বলেন, জনগণের রায়ে নির্বাচিত সরকার না হলে টিকতে পারবে না, ধ্বংস হয়ে যায়। নমুনা দেখেছেন বাংলাদেশে। আমরা জনগণের ওপর বিশ্বাস করি, আমরা জনগণের জন্য কাজ করি, আমাদের অন্য কোনো স্বার্থ নেই। মানুষের যাতে মঙ্গল হয়…মানুষের মঙ্গল হয় বলে নিশ্চয়ই মানুষ আমাদের সাহায্য করবে। কারণ এই সাহায্য তার নিজেকে করবে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *