জুন ১৭, ২০২৪

ব্যাংকে তারল্যের (ক্যাশ টাকা) কোনও সংকট নেই। এরপরও এটা নিয়ে মানুষের মধ্যে যে গুজব ছড়ানো হচ্ছে সেব্যাপারে বাংলাদেশ ব্যাংককে পরিষ্কার করে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে তিনি এই নির্দেশনা দেন। সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক হয়। পরে দুপুর দেড়টার দিকে সচিবালয়ে ব্রিফ্রিং করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

এদিকে সচিবালয়ের ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, আগামী বছর তিন কারণে অর্থনীতিতে সংকট দেখা দিতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে মন্ত্রিপরিষদ। ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাব, করোনা পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ এবং চীনের পণ্য আসা কমে যাওয়ার কারণে ২০২৩ সালে ক্রাইসিস দেখা দিতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হয়।সংকট কাটাতে ছয় পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এগুলো হলো– খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে হবে, বিদেশে দক্ষ শ্রমিক পাঠাতে হবে, রেমিট্যান্স বৃদ্ধির উদোগ নিতে হবে, বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে হবে, খাদ্য মজুত ঠিক রাখতে হবে এবং খাদ্য আমদানিতে উৎসে কর বাদ দিয়ে আমদানিকারককে সস্তি দেওয়ার উদ্যোগ নিতে হবে।

প্রসঙ্গত, ব্যাংকে তারল্য সংকট তৈরি হয়েছে এবং একারণে আমানত তুলে নেওয়া উচিত বলে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র আবুল কালাম আজাদ অর্থসূচককে বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে কোনো ব্যাংক বন্ধ হয়নি। ভবিষ্যতেও কোনো ব্যাংক বন্ধ হয়ে যাবে না। তাই আমানতের টাকা নিয়ে গ্রাহকদের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। ব্যাংকের আমানত নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কারণ নেই।

কোনো গ্রাহককে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো ব্যাংক যদি আমানতের টাকা দিতে ব্যার্থ হয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। এছাড়া যে কোনো অভিযোগ জানাতে ১৬২৩৬ নাম্বারে কল দিতে হবে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *