এপ্রিল ২২, ২০২৪

চিয়া সিড হলো সালভিয়া হিস্পানিকা উদ্ভিদের কালো রঙের ছোট্ট বীজ। উদ্ভিদটি পুদিনা পরিবারের অন্তর্গত। অনেকে চিয়া সিড অতিরিক্ত খেয়ে থাকেন অতিরিক্ত উপকারের আশায়। তারা মনে করেন, অতিরিক্ত চিয়া সিড খেলে তা দ্রুত ওজন কমাতে সাহায্য করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ চিয়া সিড পানি বা দুধে ভিজিয়ে রাখলে তা ফুলে অনেক বড় আকার হয়। চিয়া সিড অতিরিক্ত খাওয়ার ক্ষতিকর দিকও আছে। জেনে নিন অতিরিক্ত চিয়া সিড খেলে কী হতে পারে-

হজমের সমস্যা

অতিরিক্ত চিয়া সিড খেলে তা আপনার হজমে সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। এই সিড ফাইবার দিয়ে পূর্ণ থাকে। তাই চিয়া সিড যখন প্রচুর খাওয়া হয় তখন আমাদের শরীর তা সঠিকভাবে হজম করতে পারে না। তাই প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমাণ চিয়া সিড খেতে হবে, তার বেশি নয়। কারণ উপকারী এই খাবার অতিরিক্ত খাওয়ার ফলে দেখা দিতে পারে ডায়রিয়া, পেট ফাঁপা এবং পেট ব্যথার মতো সমস্যা।

রক্তচাপের ওষুধে প্রতিক্রিয়া করতে পারে

চিয়া সিডে উপস্থিত ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের রক্ত পাতলা করার বৈশিষ্ট্য রয়েছে বলে জানা যায়। নিয়মিত যদি অতিরিক্ত চিয়া সিড খান তাহলে তা উচ্চ রক্তচাপের ‍ওষুধের সঙ্গে প্রতিক্রিয়া ঘটাতে পারে। তাই আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন এবং এর জন্য নিয়মিত ওষুধ খেয়ে থাকেন তবে চিয়া সিড খাওয়ার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে আলাপ করে নিতে হবে।

রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে পারে

চিয়া সিডে থাকে পর্যাপ্ত ফাইবার। এটি অন্ত্রের শর্করা শোষণ করার ক্ষমতায় হস্তক্ষেপ করতে পারে। যে কারণে কমে যেতে পারে রক্তে শর্করার মাত্রা। চিয়া সিডের এই বৈশিষ্ট্য ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সমস্যা হতে পারে। বিশেষ করে যারা ইতিমধ্যেই ওষুধ এবং ইনসুলিন গ্রহণ করছেন, তাদের ক্ষেত্রে। অতিরিক্ত চিয়া সিড খাওয়ার অভ্যাস তাদের রক্তে শর্করার মাত্রা পরিবর্তন করতে পারে। যার ফলে ওষুধ এবং ইনসুলিনের পরিবর্তন প্রয়োজন হতে পারে।

প্রতিদিন কতটুকু চিয়া সিড খাবেন?

হেলথ রিপোর্ট অনুসারে, প্রতিদিন ১-১.৫ টেবিল চামচ চিয়া সিড শরীরের পুষ্টির জন্য যথেষ্ট। চিয়া সিডে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ফাইবার, প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ফসফরাস এবং জিঙ্ক রয়েছে।

চিয়া সিড কীভাবে খাবেন?

চিয়া সিড হলো ক্ষুদ্র এক ধরনের বীজ যার নিজস্ব কোনো স্বাদ নেই। রাতে এই সিড পানিতে ভিজিয়ে রাখতে পারেন এবং সকালে খালি পেটে পান করতে পারেন। চাইলে চিয়া সিড দিয়ে পুডিং তৈরি করেও খেতে পারেন। তবে এই সিড আগে ভিজিয়ে রাখতে ভুলবেন না। চিয়া সিড ভিজিয়ে রাখলে তা ফুলে অনেক বড় ও নরম হয়। এটি শুকনো অবস্থায় খাওয়া হলে পরবর্তীতে তা ফুলে খাদ্যনালী আটকে দিতে পারে। তাই কখনো শুকনো অবস্থায় চিয়া সিড খাবেন না।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *