এপ্রিল ২০, ২০২৪

দার্শিলের উঁচু দাঁত নিয়ে মশকরা করত বন্ধুরা। সে কথা জানিয়েছিল দার্শিল নিজেই। তবে অধুনা ২৫ বছরের যুবক দার্শিল জানালেন, দাঁতের ওই রকম আকার না থাকলে ছবিতে অভিনয় করার সুযোগ পেতেন না।

একটি সিনেমা বদলে দিয়েছিল দর্শিল সাফারির জীবন। ‘তারে জমিন পার’ ছবিতে ডিসলেক্সিয়া-আক্রান্ত ঈশান অবস্তির চরিত্রে অভিনয় করে রাতারাতি প্রচারের আলোয় চলে আসেন দার্শিল।

‘তারে জমিন পার’-এ অভিনয়ের সময় দার্শিলের বয়স মাত্র দশ। ছবিতে ঈশান নামে ডিসলেক্সিয়া আক্রান্ত এক বালকের চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। দেখা যায়, ঈশানের পরিবারের লোকজন এবং স্কুলের শিক্ষকরা কেউই তার অদ্ভুত আচরণের কারণ বুঝতে পারছেন না। পরে বোঝা যায়, চরিত্রটি ডিসলেক্সিয়ায় আক্রান্ত।

‘তারে জমিন পার’ ছবিতে আমির খানের মতো অভিনেতার সঙ্গে পর্দা ভাগ করেছিলেন দার্শিল। সেই অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে তিনি একটি সংবাদমাধ্যমকে জানান, তিনি ভয় পেতেন যে, অভিনয়ে কোনো ভুল করলে আমির তাকে বকবেন। কিন্তু কোনোদিনই আমির তাকে বকেননি বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) একটি জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে তার ‘ক্যাপিটাল এ স্মল এ’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি।

 

সূত্র : আনন্দবাজার

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *