মে ২৩, ২০২৪

বিজ ডেস্ক

রাশিয়ার দক্ষিণের শহর ইয়েস্কে সোমবার আবাসিক ভবনের বাইরে একটি যুদ্ধবিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সহকারী আলেক্সি কুজনেৎসভের বরাতে এমনটাই জানিয়েছে রাশিয়া টুডে।

এদিকে দুর্ঘটনায় ৭২টি অ্যাপার্টমেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ইঞ্জিনের ত্রুটির কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

ভবনের বাইরে আছড়ে পড়া বিমানটি সুপারসনিক সুখোই-৩৪ মাল্টিপারপাস ফাইটার জেট। সুপারসনিক বিমানগুলো শব্দের চেয়ে দ্রুতগতিতে ছুটতে পারে।

জরুরি পরিষেবাগুলো জানিয়েছে যে ধ্বংসস্তূপ থেকে ৬৮ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং ৩৬০ জনকে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

আহত আরও ১৯ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এর মধ্যে ৮ থেকে ১০ বছরের ৩ শিশুও রয়েছে।

জরুরি পরিষেবা বিভাগ জানিয়েছে, ঘটনাস্থলের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে এবং বিমানের ধ্বংসাবশেষের আগুন নিভিয়ে ফেলা হয়েছে।

দুর্ঘটনায় ৭২টি অ্যাপার্টমেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কর্তৃপক্ষ দুর্ঘটনার স্থানটি ঘেরাও করে এবং কাছাকাছি একটি স্কুল বন্ধ করে দিয়েছে।

যদিও এর আগে ক্রাসনোদর অঞ্চলের ডেপুটি গভর্নর আনা মিনকোভা জানিয়েছিলেন, ভবনের ওপর তলা থেকে পড়ে যাওয়ার ফলে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনা থেকে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ১৭টি অ্যাপার্টমেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যুদ্ধবিমান থেকে নিরাপদে পাইলটরা বেরিয়ে আসতে পেরেছেন।

পাইলটের উদ্ধৃতি দিয়ে মন্ত্রণালয় দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বিমানের ইঞ্জিনের ত্রুটির কথা বলেছে। বিমানটি টেকঅফের সময় ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়।

সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এটি ছিল প্রশিক্ষণ ফ্লাইট। অর্থাৎ জেটটিতে কোনো গোলাবারুদ ছিল না।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *