এপ্রিল ২৩, ২০২৪

রাশিয়ার হামলায় ইউক্রেনের বন্দর নগরী ওডেসা পুরোপুরি বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানিয়েছেন, ওডেসা ও এর আশপাশের ১৫ লাখ মানুষ এখন বিদ্যুৎ ছাড়া মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। সেখানকার পরিস্থিতি খুব কঠিন বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাশিয়া ইরানের তৈরি ড্রোন দিয়ে শনিবার (১০ ডিসেম্বর) সকালে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলা চালায়। এতে করে সেখানকার প্রায় সকল স্থাপনা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখন শুধুমাত্র হাসপাতাল এবং জরুরি স্থানগুলোতে বিদ্যুৎ আছে। রাশিয়ার হামলায় সেখানে যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, সেগুলো ঠিকঠাক করতে কয়েক মাস সময় লাগতে পারে।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রকাশ্যে ঘোষণা দেন, ইউক্রেনের জ্বালানি ও বিদ্যুৎ অবকাঠামোর ওপর হামলা অব্যাহত রাখবেন তিনি। অথচ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে হামলার কারণে এখন লাখ লাখ ইউক্রেনীয়কে তীব্র শীতের মধ্যে কষ্ট করতে হচ্ছে।

যেসব মানুষ ঘর উষ্ণ রাখতে শুধুমাত্র বিদ্যুতের ওপর নির্ভরশীল তাদের বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন ইউক্রেনের কর্মকর্তারা।

ইউক্রেনের সেনাদের পাল্টা হামলায় অনেক স্থান থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয় রুশ সেনারা। এরমধ্যে খারকিভ ও খেরসন ছেড়ে পালাতে হয় তাদের। এরপরই ইউক্রেনের জ্বালানি অবকাঠামো লক্ষ্য করে হামলা চালানো শুরু করে রাশিয়া। বিশেষ করে ইউক্রেন যদি রাশিয়ার কোনো স্থাপনায় হামলা চালায় তাহলে তাদের হামলার তীব্রতা বাড়ে।

 

 

সূত্র: আল জাজিরা

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *