এপ্রিল ২২, ২০২৪

বেলুনকাণ্ড ঘিরে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চলমান কূটনৈতিক বাহাসের মধেই রাশিয়া যাচ্ছেন চীনের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও শীর্ষ কূটনীতিক ওয়াং ই। রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ক্রেমলিনের প্রেস সচিব ও মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঠিক কবে মস্কো আসছেন ওয়াং ই— সে সম্পর্কিত নির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানাননি পেসকভ। তবে ধারণা করা হচ্ছে— শিগগিরই হবে এই সফর।

ঠিক কোন ইস্যুতে মস্কো সফরে যাচ্ছেন ওয়াং ই, সেসম্পর্কেও ভেঙে কিছু বলেননি ক্রেমলিনের প্রেস সচিব। সোমবারের সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রেসিডেন্টের (ভ্লাদিমির পুতিন) সঙ্গে তিনি বৈঠক করবেন। স্পষ্ট ও বিস্তৃত বিভিন্ন ইস্যুতে উভয়ের মধ্যে দীর্ঘ সংলাপ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তবে কূটনৈতিক একটি সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে, ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর বিশেষ সামরিক অভিযানের অবসান এবং দুই দেশের মধ্যকার বিভিন্ন সমস্যা রাজনৈতিকভাবে সমাধান করতে চীনের বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়েই আলোচনা হবে পুতিন ও ওয়াং ই’র মধ্যে।

ইউক্রেন ইস্যুতে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং শুরু থেকেই পুতিনের পাশে আছেন। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি যুদ্ধ বাঁধার পর থেকে রাশিয়াকে বিশ্ব রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা।

কিন্তু তা যে পুরোপুরি সফল হয়নি, তার প্রধান কারণ— চীন সবসময় রাশিয়ার পাশে ছিল।

গত সপ্তাহে বেইজিংয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়াং ই বলেছিলেন, ইউক্রেন ইস্যুতে চীন বরাবরই রাজনৈতিক সমঝোতার ভিত্তিতে যাবতীয় সংকট মোকাবিলার পক্ষপাতী।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *