মে ২৬, ২০২৪

চলতি বছরের মে মাসে ভারত সরকার গম রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। কিন্তু যেসব দেশে খাদ্যনিরাপত্তা ঝুঁকি আছে এবং যেসব দেশ সরবরাহ অব্যাহত রাখার অনুরোধ করেছিল, সেসব দেশে রফতানি অব্যাহত রাখা হয়। ফলে চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে ভারতের গম রফতানি আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে। খবর ইকোনমিক টাইমস।

এ বিষয়ে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানায়, তৃতীয় প্রান্তিকে দেশটি ১৪৮ কোটি ডলারের গম রফতানি করে। গত বছরের একই সময় রফতানি করা হয়েছিল মাত্র ৬৩ কোটি ডলারের গম।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে গম সরবরাহ ব্যাপকভাবে ব্যাহত হয়েছে। কারণ উভয় দেশই বিশ্বের শীর্ষ গম রফতানিকারক। এমন সংকটের মধ্যে ভারত আমদানিকারক দেশগুলোর জন্য অন্যতম বিকল্প উৎস হয়ে ওঠে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় জানায়, শুধু গমই নয়, চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্য রফতানি বেড়েছে ২৫ শতাংশ।

রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর বিশ্বজুড়ে সৃষ্ট গম সংকটে ভুক্তভোগী আমদানিনির্ভর দেশগুলো। এর মধ্যে নিম্ন আয়ের দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। পরিস্থিতি উত্তরণে জুনে ভারতের সহায়তা চায় বেশকিছু দেশ। তখন এসব দেশ থেকে ১৫ লাখ টনেরও বেশি গম সরবরাহের অনুরোধ পায় ভারত।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *