এপ্রিল ১৭, ২০২৪

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, জাপানের বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশের শেয়ারবাজার বিনিয়োগের উত্তম জায়গা। বাংলাদেশে বিনিয়োগ করে জাপানের বিনিয়োগকারীদের উন্নয়নের অংশীদার হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) জাপানের এএনএ ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে ‘ইনভেস্টমেন্ট ফ্ল্যাশ মব’ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিএসইসি এবং বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের জিডিপি এবং মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। তুলনামূলকভাবে অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশে মূল্যস্ফীতি এখনো কম। আমাদের রেমিট্যান্স আয়ও বাড়ছে। এখনো বাংলাদেশের অর্থনীতি যথেষ্ট ভালো অবস্থানে আছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের বৈদেশিক নীতি খুবই ভালো। জাপানের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বও চমৎকার। ২০২০ সালে বাংলাদেশ থেকে জাপানে ১ দশমিক ৩১ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে।

তিনি বলেন, সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাপান সফর করেন। এরপরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিন ৫ বার জাপান ভ্রমণ করেন। জাপানের সঙ্গে বাংলাদেশের খুবই ভালো অবস্থানে রয়েছে। ইতিমধ্যে দেশের অবকাঠামো খাতে জাপানি বিনিয়োগকারীরা যুক্ত হয়েছে। এসময় বিএসইসি ও বিডাকে এই আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে পররাষ্ট্র সচিব ড. মাসুদ বিন মোমেন ও জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমেদ ফ্ল্যাশ মবে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া, বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদসহ জাপান এবং বাংলাদেশের বিনিয়োগকারী, শিল্পপতি ও ব্যবসায়ীরা ফ্ল্যাশ মবে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *