এপ্রিল ২০, ২০২৪

ফ্রিল্যান্সারদের আয় মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের (এমএফএস) মাধ্যমে দেশে আনলে তার সনদ তাৎক্ষণিক দিতে পারবে ব্যাংকগুলো। বুধবার ( ১৬ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করে ব্যাংকের অথরাইজড ডিলার (এডি বা বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেনকারী শাখা) শাখাগুলোকে সনদ দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, দেশের এমএফএসের মাধ্যমে আসা আইটি খাতের রপ্তানি আয়ের বিপরীতে লেনদেনের তথ্য বিবরণীর বিপরীতে সনদ ইস্যু করবে। তবে রপ্তানি আয়ের যেটুকু নগদায়ন করা হয়েছে তার পক্ষেই সনদ দিতে বলা হয়েছে। আর গ্রাহক ওই সনদ তার আয়কর বিবরণীতে সংযুক্ত করতে পারবে।

সার্কুলারে আরও বলা হয়, স্বয়ংক্রিয় সফটওয়্যারের মাধ্যমে রপ্তানি আয় সংক্রান্ত তথ্য দিয়ে সনদ তৈরি হবে। যেখানে রপ্তানি আয়ের সুবিধাভোগী অর্থাৎ প্রাপকের ওয়ালেট নম্বর, টাকার পরিমাণ, বৈদেশিক মুদ্রার পরিমাণ ইত্যাদি তথ্য উল্লেখ থাকবে। আর ইলেকট্রনিক প্রক্রিয়ায় সনদ তৈরি হওয়ায় কিউআর কোড সুবিধাও থাকবে।

এর আগে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এমএফএস হিসাবের মাধ্যমে শুধু আইটি খাতের রপ্তানি আয় সীমিত পরিসরে আনার সুযোগ দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। আর রপ্তানি আয় পেলেও তা আয়কর বিবরণীতে সংযুক্ত করতে বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে আইটি খাতের ব্যবসায়ী ও ফ্রিল্যান্সারদের। কারণ সেখানে আয়ের প্রমাণপত্র দেওয়ার সুযোগ থাকত না। এখন আয়ের সনদ পাবে; আয়কর বিবরণীতেও তা ব্যবহার করতে পারবে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *