এপ্রিল ২৩, ২০২৪

পুঁজিবাজারে অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয়ে আরও এক বছর সময় বাড়িয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়। ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় পেলো ব্যাংকগুলো। ৭ নভেম্বর অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. জেহাদ উদ্দিন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে,বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ৪ আগস্ট,২০২২ জারিকৃত ডিওএস সার্কুলার লেটার নং-৩০/২০২২ এর নির্দেশনা পরিপালনজনিত লোকসান রোধে এবং পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতার স্বার্থে ব্যাংকসমূহ কর্তৃক ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১ এর ধারা ২৬ক এর উপ-ধারা (১) এর নির্দেশনা পরিপালনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রস্তাবিত নিমোক্ত পদক্ষেপের বিষয়ে সহমত পোষণ করছে।

ক. বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ৪ আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দে জারিকৃত ডিওএস সাকুলার লেটার নং-৩০ জারির পর ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১ এর ধারা ২৬ক এর উপ-ধারা (১) এবং ডিওএস সার্কুলার লেটার নং-০৭/২০১৪ অনুযায়ী পুঁজিবাজারে বিডিবিএলসহ যেসকল ব্যাংকের সীমাতিরিক্ত বিনিয়োগ (ব্যাংক কর্তৃক অন্যান্য কোম্পানীর শেয়ার ধারণের ক্ষেত্রে সামষ্টিক বা এককভাবে কোন কোম্পানীর শেয়ার ধারণের ক্ষেত্রে) রয়েছে সে সকল ব্যাংকের সীমাতিরিক্ত বিনিয়োগ ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১-এ বর্ণিত নির্ধারিত সীমায় নামিয়ে আনার জন্য ৩১ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সময়সীমা প্রদান।

খ. উক্ত বর্ষিত সময়সীমার মধ্যে অন্যান্য কোম্পানীর শেয়ার ধারণের ক্ষেত্রে সামষ্টিকভাবে বা এককভাবে কোন কোম্পানীর শেয়ার ধারণের ক্ষেত্রে সীমাতিরিক্ত বিনিয়োগকারী ব্যাংকসমূহ ৩১ আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ভিত্তিক সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকে (রেশিওতে) কোন ক্রমেই বাড়াতে পারবে না।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *