এপ্রিল ২৩, ২০২৪

‘কনম্যান’ সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে ২০০ কোটি টাকার তহবিল তছরুপের ঘটনায় নাম জড়ায় বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজের। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সে মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে এসে জামিন পেলেন তিনি।

অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের মেয়াদ ছিল ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ফলে মঙ্গলবার আবারও তাকে দিল্লির পাটিয়ালা হাউস আদালতে হাজিরা দিতে হয়েছে। এর আগে পাটিয়ালা হাউস আদালতে জ্যাকলিনের জামিনের আবেদন খারিজ করার আর্জি জানায় ইডি। তখন অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে তদন্তে অসহযোগিতা-সহ বিভিন্ন অভিযোগ আনা হয়।

জ্যাকলিনের দাবি ছিল, তদন্ত ইতোমধ্যেই সমাপ্ত হয়েছে। চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। তাকে হেফাজতে নেওয়ার যৌক্তিকতা দেখছেন না। দিল্লির পাটিয়ালা হাউস আদালত গত ২৬ সেপ্টেম্বর অভিনেত্রীকে অন্তর্বর্তী জামিনের অনুমতি দিয়েছিল।

আদালতে জামিনের আবেদনের শুনানি চলাকালীন ইডি অভিযোগ জানায়, জ্যাকলিন তার মোবাইল থেকে সব তথ্য মুছে দিয়ে তদন্তকারীদের বিভ্রান্ত করেছেন। তদন্তে সহযোগিতা করছেন না তিনি, এমনও অভিযোগ ওঠে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছাড়া পান তিনি।

গত আগস্টে সুকেশের সঙ্গে তছরুপ মামলায় নাম জড়ানোর পর ইডি তলব করে জ্যাকলিনকে। শুধু তা-ই নয়, তার সঙ্গে সম্পর্কিত আরও অনেককেই থানায় হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেয় দিল্লির আর্থিক অপরাধ দমন শাখা। সেখানে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ইতোমধ্যে জেলবন্দি সুকেশও তার আইনজীবী মারফত চিঠি পাঠান আদালতে। সেখানে তিনি জানান, জ্যাকলিনের কোনো দোষ নেই। শুধু শুধুই তার নাম জড়িয়ে হেনস্থা করা হচ্ছে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *