এপ্রিল ২২, ২০২৪

ঢাকাকে বাঁচাতে হলে গাছ লাগাতে হবে বলে উল্লেখ করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (২ মার্চ) রাজধানীর গুলশানে ডা. ফজলে রাব্বি পার্কে ডিএনসিসির মেয়র বৃক্ষ রোপণ কার্যক্রম উদ্বোধনকালে একথা বলেন।

বাংলাদেশ-কোরিয়া বন্ধুত্বের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির উদ্যোগে গুলশানে ডা. ফজলে রাব্বি পার্কে বৃক্ষ রোপণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কিউন।

পরিবেশের জন্য গাছের গুরুত্ব অপরিসীম উল্লেখ করে মেয়র বলেন, গাছ পরিবেশের অপরিহার্য উপাদান। অথচ ঢাকা শহরে গাছের সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম। ঢাকা শহরে যে অল্পকিছু গাছ আছে সেগুলোও কেটে স্থাপনা গড়ে তোলা হচ্ছে। ঢাকার তাপমাত্রা দিন দিন বেড়েই চলেছে। গাছপালা না থাকায় তাপমাত্রার অনুভূত হয় অনেক বেশি। ঢাকাকে বাঁচাতে হলে গাছ লাগাতে হবে।

মেয়র আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, বাংলাদেশ ও কোরিয়ার মধ্যে সৌহার্দ্য ও ভাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিদ্যমান। কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির বৃক্ষ রোপণের উদ্যোগ দুই দেশের সম্পর্ককে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে। পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যে আর্থিক ও সাংস্কৃতিক সুসম্পর্ক রয়েছে। এ ধরনের কার্যক্রমে ভবিষ্যতে ডিএনসিসি সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ডা. ফজলে রাব্বি পার্কের উন্নয়ন কার্যক্রম প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। সহজ পরিচর্যা বিবেচনায় এ পার্কে দেশীয় ফলদ, বনজ বৃক্ষ, ঔষধি ও ফুলের গাছসহ প্রায় ৪৮০টি গাছ রোপণের প্রভিশন রয়েছে। ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট জোনে ৮৫টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপণ করা হবে এবং সংগঠনটি ৬ মাস পর্যন্ত তার পরিচর্যা করার দায়িত্ব নেবে।

এসময় ঢাকায় নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কিউন ডিএনসিসি মেয়রের বিভিন্ন ধরনের পরিবেশের উন্নয়ন বিষয়ক, জনসচেতনতা ও জনসেবামূলক কাজের প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কোরিয়া বাংলাদেশ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ও পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সচিব) নাসিমা বেগম, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহ. আমিরুল ইসলাম, ডিএনসিসির সচিব মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক প্রমুখ।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *