এপ্রিল ২৩, ২০২৪

দেশের পুঁজিবাজারে সাম্প্রতিক সময়ে তালিকাভুক্ত কোম্পানি, কোম্পানির বোর্ড, সংশ্লিষ্ট অডিটর এবং কোম্পানির ইস্যু ম্যানেজারদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এরই প্রেক্ষিতে কোম্পানির তালিকাভুক্তীর ক্ষেত্রে ইস্যু পরিচালনায় বিএসইসির কার্যকর পদ্ধতি ও নির্দেশনা চেয়ে আবেদন জানিয়েছে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশন (বিএমবিএ) আবেদন।

সম্প্রতি এ বিষয়ে আবেদন জানিয়ে‌ সংগঠনটির সভাপতি মোঃ ছায়েদুর রহমান ও সেক্রেটারি রিয়াদ মতিন স্বক্ষরিত একটি চিঠি দিয়েছে কমিশনে।

বিএমবিএর আবেদনে বলা হয়েছে, বিএসইসির সাম্প্রতিক প্রেস রিলিজ এবং বেশ কয়েকটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে বিএসইসি ইস্যুকারী কোম্পানি, ইস্যুয়ার কোম্পানির বোর্ড, সংশ্লিষ্ট অডিটর এবং ইস্যু ম্যানেজারদের বিরুদ্ধে আইন‌ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে যাচ্ছে। আমরা এই বিষয়ে কমিশনের উদ্যোগের প্রশংসা করি যা ভবিষ্যতে অনিয়ম কমাতে পারে।

এই বিষয়ে আমরা বলতে চাই যে, ইস্যু ম্যানেজমেন্টের কাজগুলো করতে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো সকল প্রয়োজনীয় তথ্য এবং নথিপত্র ইস্যুকারীর কাছ থেকে সংগ্রহ করে। এরমধ্যে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন, ব্যাংকের নথি, নিয়ন্ত্রকের লাইসেন্স, বিভিন্ন প্রত্যয়নের অনুলিপি। এছাড়া মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো কোম্পানির বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করার জন্য পরিচালনা পর্ষদ, ম্যানেজমেন্ট, অডিটর এবং অন্যান্যদের সাথে বসে। যথাযথ প্রক্রিয়ায় ইস্যু ম্যানেজার কারখানা প্রাঙ্গনে যায় এবং ব্যবসার প্রকৃতি, ব্যবসার বর্তমান পরিস্থিতি, তহবিল সংগ্রহের প্রয়োজনীয়তা বোঝার চেষ্টা করেন। সেই সাথে কোম্পানির অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিক ঝুঁকির কারণগুলো এবং স্পনসরদের অভিজ্ঞতা ঐ আয়ের ব্যবহার বিশ্লেষণ করেন। তারপর আইপিও আবেদন জমা দেয়। এছাড়া বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (পাবলিক ইস্যু) বিধিমালা ২০১৫ অনুসরণ করে এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিজ্ঞপ্তি, গেজেট, এবং আদেশ মেনে চলে যা বিএসইসি দ্বারা নির্ধারিত হয়।

এদিকে এই বিষয়ে ইস্যু ম্যানেজারদের দ্বারা কীভাবে সেরা ইস্যু ম্যানেজমেন্ট কাজগুলো প্রদান করা যায়, সে সম্পর্কে একটি নিয়ন্ত্রণ দরকার। যাতে সকল সদস্য দক্ষতার সাথে এবং মর্যাদার সাথে ইস্যু ম্যানেজমেন্ট কাজগুলো সম্পাদন করতে উতসাহিত বোধ করে৷ কারণ যারা সক্রিয়ভাবে ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছেন, তারা ইস্যু ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে খুবই বিব্রতকর অবস্থানে রয়েছে।

তাই এ বিষয়ে বিএমবিএ কমিশনের পরামর্শ ও নির্দেশনা চায়। যাতে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের পাশাপাশি তহবিল সংগ্রহের বিষয়গুলো নিশ্চিত করা যায়। ফলে ইস্যু ম্যানেজারদের জন্য দায়িত্ব এবং কাজের পদ্ধতির নির্দেশনা প্রয়োজন, যা ভবিষ্যতে অনিয়ম হওয়ার সুযোগ কমিয়ে দেবে।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *