জুন ১৭, ২০২৪

ক্যাটরিনা কাইফ। বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রীদের একজন তিনি। ২০২১ সালে ভক্তদের হৃদয় ভেঙে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। তারপরও তার জনপ্রিয়তা অটুট।

মূলত অভিনেত্রীর নিষ্পাপ-পেলব সৌন্দর্যে মুগ্ধ ভক্তরা। দেখে যেন মনে হয়, কোথায় গিয়ে যেন বয়সটাও তার থমকে গেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিলেই ঝড় ওঠে ভক্তদের মনে। ফলে কমেন্ট বক্সেও উপচে পড়ে ভালোবাসা। কিন্তু ক্যাটরিনার এই সৌন্দর্যের রহস্যটা কী?

সৌন্দর্য আর ফিটনেস ধরে রাখাটা কিন্তু মুখের কথা নয়। নিজের নিখুঁত দেহসৌষ্ঠব এবং সৌন্দর্য বজায় রাখার জন্য ক্যাটরিনা ব্যায়াম তো করেনই, সেই সঙ্গে নিয়ম মেনে ডায়েটও করেন। সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট বলছে, ফিট এবং টোনড বডি ধরে রাখার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাম ঝরান ক্যাটরিনা। ফলে বোঝাই যাচ্ছে যে, দিনের অনেকটা সময়ই তার কাটে জিমে।

বলে রাখা ভালো, খেতে ভালোবাসেন ক্যাটরিনা। নিজেকে ফুডি বলতেই পছন্দ করেন তিনি। তবু ফিটনেসের জন্য ডায়েটের দিকেও থাকে কড়া নজর। কিছু সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, দুগ্ধজাত খাদ্যসামগ্রী থেকে দূরত্ব বজায় রাখেন এই অভিনেত্রী।

কারণ তিনি মনে করেন, এ ধরনের খাদ্যদ্রব্য থেকে ফ্যাট দ্রুত বাড়ে। পাশাপাশি পাস্তা কিংবা ব্রেড জাতীয় ময়দার তৈরি খাবারও এড়িয়ে চলেন তিনি। ফিটনেস জার্নিতে একবার নামলে ডায়েট থেকে বাদ দিয়ে দিতে হয় চিনি কিংবা মিষ্টি জাতীয় খাবার। ক্যাটরিনাও এর ব্যতিক্রমী নন।

চিনির পরিবর্তে তিনি মিষ্টি হিসেবে মধু কিংবা গুড়কে বেছে নেন। কারণ রিফাইন করা চিনির মধ্যে অতিরিক্ত পরিমাণে ক্যালোরি থাকে, যা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়। অন্যদিকে মধু কিংবা গুড় শরীরের জন্য বেশ নিরাপদ। আর এভাবেই মাত্র কয়েকটি নিয়ম মেনেই সুন্দরী ও তরতাজা থাকেন ক্যাটরিনা।

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *