এপ্রিল ২৩, ২০২৪

জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাস দমনে পুলিশের ভূমিকা প্রশংসা করার মতো বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে দিন দিন অপরাধের ধরন বদলে যাচ্ছে উল্লেখ করে সরকারপ্রধান বলেন, পুলিশকেও সেভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে।

আজ মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর রাজারবাগে পুলিশ সপ্তাহ-২০২৪ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগে পুলিশ বাহিনী অসামান্য অবদান রেখে যাচ্ছে। কিন্তু জাতির দুর্ভাগ্য হলো, রাজনীতির নামে জনগণের সম্পদ ধ্বংস করার মতো ঘটনা ঘটেছে। এমনকি পুলিশের ওপরও অত্যাচার-নির্যাতন চালানো হয়েছে। তবুও পুলিশ বাহিনী জনগণের জানমাল রক্ষায় দুষ্কৃতকারীদের রুখে দিতে সক্ষম হয়েছে।

‘বিএনপি-জামায়াতের রাজনৈতিক নাশকতা ঠেকাতে গিয়ে পুলিশ বাহিনী অনেক ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশের ভূমিকা প্রশংসা করার মতো।

শেখ হাসিনা বলেন, জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদক মোকাবিলায় পুলিশকে আরও সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে। অপরাধের ধরন বদলে যাচ্ছে, সেভাবে পুলিশকেও বদলে গিয়ে আরও আধুনিক হতে হবে। সমৃদ্ধ দেশ গড়তে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও সমাজে স্থিতিশীলতা বজায় রাখা জরুরি।

তিনি আরও বলেন, জনগণের বন্ধু হতে হবে পুলিশকে। বাহিনীকে সেভাবেই গড়ে তোলা হচ্ছে। আজকের পুলিশ বাহিনী অতীতের চেয়ে অনেক দক্ষ। তাদের যথোপযুক্ত প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। মানুষের মধ্যে আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপনের মাধ্যমে দক্ষ-জনবান্ধব বাহিনী হিসেবে গড়ে ওঠেছে পুলিশ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পুলিশ বাহিনী আগামী দিনে আরও স্মার্ট হয়ে উঠবে। তাই এই বাহিনীতে আরও লজিস্টিকস সাপোর্ট বাড়াবে সরকার। আধুনিক ডিএনএ ল্যাব প্রতিষ্ঠা করে দেয়া হয়েছে। এসব ল্যাব অচিরেই সারা দেশে স্থাপন করা হবে, যাতে তদন্ত দ্রুত শেষ করা যায়। পুলিশের সাইবার ইউনিট গঠন করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। পুলিশের পূর্ণাঙ্গ এভিয়েশন ইউনিট গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শিগগিরই দুটি হেলিকপ্টার যুক্ত হবে পুলিশ বাহিনীতে।

 

শেয়ার দিয়ে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *